ওয়েব ডিজাইন পরিচিতি এবং HTML (সৃজনশীল প্রশ্ন ও সমাধান) : পাঠ – ৪

ওয়েব ডিজাইন পরিচিতি এবং HTML (সৃজনশীল প্রশ্ন ও সমাধান) : পাঠ – ৪

প্রশ্ন-: নিচের উদ্দিপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
সজীব ইউটিউবে কিছু ভিডিও আপলোড করল। তার আগে সে ভিডিও ফাইলগুলোকে AVI এবং MPEG ফরমেট- রূপান্তর করে নিল।

ক) ইউটিউব কী?
খ) আইপি অ্যাড্রেস বলতে কী বুঝ?
গ) সজীবের কাজের জন্য প্রয়োজনীয় Attribute গুলোর ব্যবহার লেখ।
ঘ) সজীবের ব্যবহৃত ২টি ফরম্যাট পদ্ধতির সুবিধা অসুবিধা লিখ।
উত্তর-
ক) ইউটিউব হলো ভিডিও দেখা ও শেয়ার করার একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট।

খ) পিসিসমূহের মধ্যে একটি সাথে আরকটির সংযোগ ঘটানোর জন্য যে অ্যাড্রেস বা ঠিকানা ব্যবহার করা হয় তাই হচ্ছে আইপি অ্যাড্রেস (IP Address) বা ইন্টারনেট প্রোটোকল অ্যাড্রেস (Internet Protocol Address)। এটি হচ্ছে একটি সংখ্যাগত লেবেল যা একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্কে সংযুক্ত প্রতিটি ডিভাইস খুজে পেতে ব্যবহৃত হয়।

গ) সজীবের কাজের জন্য ব্যবহৃত Attribute গুলোর ব্যবহার নিম্নরূপ:

  1. SRC=SRC হলো<EMBED>ট্যাগের গুরুত্বপূর্ণ Attribute। SRC এর দ্বারা বুঝাবে ভিডিও ফাইলটির অবস্থান বা URL। যেমন: SRC=”Videos/Movie.Mp4” অর্থাৎ Movie.avi ফাইলটি আছে, যে ফোল্ডারে ওয়েবপেজটি আছে তার মধ্যে Videos নামক ফোল্ডারে।
  2. ALT=ALT মানে Alternative Text অর্থাৎ যদি কোনো কারণে ব্রাউজার ভিডিও প্রদর্শন করতে না পারে তাহলে ঐ স্থানে ALT এট্রিবিউটের মানে দেখাবে।
  3. BORDER= BORDER এট্রিবিউটের দিয়ে ভিডিও-এর চারপাশের বর্ডারকে নিদের্শ করে। BORDER= “3” মানে ভিডিও-এর চারপাশে 3 Pixels পরিমাণের Border দেখাবে।
  4. AUTOSTART= AUTOSTART এট্রিবিউট দিয়ে নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয় ভিডিওটি কি ওয়েবপেজ চালু হওয়ার সাথে সাথে শুরু হবে নাকি Manually অন করতে হবে। যেমন- AUTOSTART = “FALSE” বলতে বুঝায় ভিডিওটি পেইজ ভিজিট করার সাথে সাথে Play।
  5. LOOP= LOOP দ্বারা বুঝানো হয় ভিডিওটি কতবার চলবে। LOOP = “2” মানে ভিডিওটি ২ বার চলবে।
  6. WIDTH ও HEIGHT এর দ্বারা বুঝায় প্লেয়ারটি পেইজের কতটুকু জায়গা দখল করবে। এর মান Pixel- এ হিসাব করা হয়।

ঘ) সজীবের ব্যবহৃত ২টি ফরম্যাট হলো AVI এবং MPEG।

AVI এর সুবিধা : ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত এই ফরম্যাট মূলত উইন্ডোজের উপযোগী ফরম্যাট। তাই বর্তমানে এই ফরম্যাট উইন্ডোজের জন্য আদর্শ  ফরম্যাট হিসাবে বিবেচিত হয়। AVI ফরম্যাটের ফাইলের ভিডিও ডেডা ইন্টারনেটের Babdwidth অনুযায়ী বিভিন্নভাবে ফরমেটে এবং কমপ্রেসড হতে পারে। আবার প্রায় সব ব্রাউজারে এই ফরম্যাটের Bandwidth অনুযায়ী বিভিন্নভাবে ফরমেটেড এবং কমপ্রেসড হতে পারে। আবার প্রায় সব ব্রাউজারই এই ফরম্যাটের ফাইল প্রদর্শন করতে পারে ।

AVI- এর অসুবিধা : এই ফরম্যাটে অল্প সময়ের জন্য বাইট সংখ্যা যথেষ্ঠ বেশি পরিমাণ প্রয়োজন হয় তাই ব্রাউজিং-এ এর একটু বেশি সময় লাগে।

MPEG এর সুবিধা : অন্যতম জনপ্রিয় ভিডিও ফরম্যাট হচ্ছে MPEG ফরম্যাট। এর পূর্ণরূপ হলো- Moving Picture Experts Group এই নামকরণটি করা হয়েছে এর নির্মাতাদের দেওয়া নামানুসারে। MPEG ভিডিও হচ্ছে সর্বোচ্চ মানসম্পন্ন ভিডিও এবং যা সম্পূর্ণ Screen- এ সেকেন্ডে ৩০ ফ্রেম প্রদর্শন করতে পারে। এতে ছবির রং ও মানকে ঠিক রেখে বাকী অপ্রয়োজনীয় ডেটা বাদ দেওয়া হয়। তাই মূল ভিডিও ও সাউন্ডকে যখন কম্প্রেসান করা হয়, তখন এর অাকৃতি অনেক কমে যায় । MPEG ফাইল Windows, Macintosh এবং Unix platform কর্তৃক সমর্থিত। তাই MPGEসম্ভবতঃ সবচেয়ে  নিরাপদ মাল্টিমিডিয়া ফাইল ফরম্যাট বা ওয়েব ওয়েবপেজে ব্যবহার করা যায়।

MPEG এর অসুবিধা : MPEG এর অন্যতম অসুবিধা হলো অনেক সময়ে এর ভিডিও মান কমে যায় ফলে ভিডিওটি স্পষ্ঠ হয় না।

No Comments

Post a Reply